অদিতি’র কবিতা

অদিতি
কবিতা
Bengali
অদিতি’র কবিতা

চেয়ে থাকতে থাকতে বুজে আসে চোখ
মৃত্যু দোসর হলে নত হয় দোজখ
তুমি বুঝি উপশমকারী, পাল্টে দিতে পারো দৃশ্য!
তবে কি নিশ্চিত সময়ে তুমি অবিমৃশ্য?


বুঝতে পারি না কে বেশি বধির
সময় নাকি আমি?
অনেকটা কলরবে আরও দুর্বোধ্য হয়ে ওঠার যেন নেশা পেয়ে বসে!
বরফ থেকে জলের মাঝে অগণিত শীতের যাতায়াত বাড়ে;
মন পাতলে ছুঁয়ে যায় সেসব হিমেল কথা

তবুও তো কিছুই যেন শোনা হয়ে ওঠে না
নির্নিমেষ এক বধিরতা জড়িয়ে রাখে
আমাকে, তোমাকে, কত সহস্র জন্মকে।


নিভে যেতে যেতে এই যে আলো হয়ে ফিরে আসা
এও তো এক অধ্যায়; জিজিবিশা।

এরপরে আরও দূর, সুদূর এক জ্বলজ্বল তারা
ছোঁয়া তো দায়, মনেতে আকাশ রাখেনা যারা।

স্রোতে ভেসে আসে সুর,
কোমল আরোহী বাতাসে খুঁজে ফেরে ঠাঁই
তবুও তোমার কাছে এলে মনে হয় থেকে যাই!
তবুও তোমার কাছে এলে মনে হয় সবটুকু রেখে যাই!

অদিতি। কবি ও বাচিকশিল্পী। অদিতি নামে লেখালিখি করলেও তাঁর পুরো নাম অদিতি রায়চৌধুরী। জন্ম ভারতের পশ্চিমবঙ্গরাজ্যের উত্তরবঙ্গের কোচবিহারে। বর্তমান নিবাস কলকাতা। প্রকাশিত বই: 'অনাঘ্রাতা' (কাব্যগ্রন্থ, ২০২১), দোয়াব (কাব্যগ্রন্থ, ২০২২)

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ