অনভ্যাসে ভুলে গেছি ও অন্যান্য

তৌহীদা ইয়াকুব
কবিতা
Bengali
অনভ্যাসে ভুলে গেছি ও অন্যান্য

ফেব্রুয়ারি এক.

কিছু বোধ নির্বোধে আটকে গেলে
মৃত্যু এসে জীবন কাটায়ে যায়।
কেমন শত্রুতা শিখেছে মৌসুম
সুচারু নোখের কোলে জমিয়ে রাখে আক্রোশ
মিস্টি শান্ত হাসি, সুন্দর এর ঠিক নিচেই তৈরি ফণা
জড়িতে ঝালরে সুগন্ধ মাখামাখি।
যখন দেখেছি প্রথম, সেই থেকে
অস্তমিত সূর্য সাথে নিয়ে
শিখে চলে আরো আরো নিপুণ
বিবেধের বুনন।
ফেব্রুয়ারির হিমে চিমনির আগুন উস্কে
ফেব্রুয়ারির হিমে চিমনির আগুন উস্কে
বাজাই মঙ্গল গীত
এরপর এসো ভাবি ,
সুগন্ধির আড়াল থেকে
কিছু দুর্মতি ফিরে গেলেও যেতে পারে নাকি!

 

ফেব্রুয়ারি দুই.

আজ অফুরান পাহাড়ি হাওয়া
হিম বৃষ্টি অচেনা মুখ!
সাদা জমিন তোমাকে মানাক
অক্ষরে কালো স্মৃতিকথা থাক।
উপড়ানো দু’চোখ ভেঙ্গে দেয়া মন
এখনও ক্ষত এখনো দূষণ
হাত পেতে দাও, লিখে নিয়ে যাও
অভিমান সহ দীপ্ত অহং, গাইবে এখন
আমার ভাইয়ের রক্তে জ্বালায়ে
তরুন কলম!
তোমার কিছুটা কুয়াশা-সকাল
বসন্ত-পলাশ, বসন্ত-কোকিল
যেমন কাটানো অর্ধ জনম
ছুঁয়ে ছুঁয়ে যাওয়া ঠিক এই প্রহর
খুলে দিয়ে বসি-
শব্দেরা আসো বর্ণ দিয়ে সেলাই করো
পরিযায়ী ডানা পালকের হার।

অনভ্যাসে ভুলে গেছি

কিছু সন্তাপ মুছে নিও হে দ্যোতনা আকাশ
কিছু দাগে পালিত্য সময় অব্দি যতনে স্পর্শ বুলাই ।
বড় আসময়ে মনে পড়ে বর্ষীয়ান সুর,
তার সাথে খুলে যায় লুকোনো উপত্যকা
এখন কোথা পাই মধুজল, নোনা ঠোঁট???
এই ঘন আবাসিক দ্রোহে
কোন সর্বনাশা লগ্ন আসে নি বলে
অনভ্যাসে ভুলে গেছি প্রেম ও সমর্পণের দিকে হেঁটে যাওয়া।

মিছিলে

কতটা স্বপ্ন-সাধ , দেখিয়ে ভুলে যাস ?? দু’চোখে নিয়ে বিষাদ ,
আড়ালে ঢেকে রাখ,
সেখানে কিছু জল , নদীকে ভুলে গেছে, ভুলেছে কলোরো্‌ল,
তবু সে টলোমল,
নিজেরই পথে যত , দিনে রাতে অবিরত, দেখে নিস আশেপাশে ,
কেউ কি খোঁজে তোকে?
বাড়ালে সেই হাত নিরবে ধরে থাক, লঘু বা গুরু স্রোতে ,যেটুকু যা জোটে , মানুষ মানুষে যদি ,
পথে যেতে নিরবধি, একি পাতে শাকে- ভাতে, চুকে গেলে দিনে রাতে , হাতে হাত ধরে জাগে , মিছিলের পুরোভাগে …..

তৌহীদা ইয়াকুব। কবি। জন্ম- ১৫ই মে ১৯৬৯। বাড়ি টাঙ্গাইল জেলার ভুঞাপুর উপজেলায়। বাবা ইয়াকুব আলি তালুকদার, সরকারি কর্মকর্তা ছিলেন। মা ছিলেন গৃহিনী। চার ভাই বোনের মধ্যে তিনি ৩য়। ছোট বেলা থেকেই লিখছেন। তবে প্রকাশে একেবারেই অনিচ্ছুক সবসময়। ফেসবুকে নিজের স্ট্যাটাস এ...

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

অহমিকা

অহমিকা

অহমিকা আত্মগরিমায় আজ অন্ধ হয়ে আছো, বিবেকের দংশনে মননে নেই বিশ্বাস। কর্মে ব্যস্ততা সময়ের আবর্তে…..