অপেক্ষার বৃক্ষ প্রতীক্ষার ফুল

রোমান জাহান
কবিতা
Bengali
অপেক্ষার বৃক্ষ প্রতীক্ষার ফুল
অপেক্ষার বৃক্ষ প্রতীক্ষার ফুল
তন্দ্রাহতের মতো জেগে থাকি
হাওয়ার পেরেকে একাকী
এ-ফোঁড় ও-ফোঁড় দায়মুক্ত আয়ু
স্মৃতির অনিমিখ জলবায়ু
মেঘের সাথে উড়ে গেছে
ভুলে যাওয়া গোধূলির উল্লাসে
এখন জলে মৃত্তিকার ধ্বনি
রোদমুগ্ধ শরাহত হরিণী
অবাক দেখে
দৃষ্টির অনায়াস নিয়তি
উল্টে রাখে চোখ
হিম হিম আঁধারের ক্ষতি
কখন যে বিলীন করেছে
অনুভবের ঘর
জানতেই পারেনি
কীভাবে বিগত বছর
সর্বক্ষণ ভেবে গেছে
দুজনেই নির্ভুল
অথচ অপেক্ষার বৃক্ষে
কখনও থিতু হয়নি প্রতীক্ষার ফুল।
অপেক্ষার অন্তরীক্ষে
অতীত যতই আর্তনাদ করুক
যন্ত্রণা ও ক্রোধে-
কেউ একজন তবু
কিশোরীর মত উঁকি দিক
অপেক্ষার অন্তরীক্ষে !
বদলে যাওয়া শহর 
কতকাল, কিংবা কতদিন পর
জ্যোতির্বলয়ের সুস্থির এক শহর
হঠাৎই বদলে গেলো
ছিন্নভিন্ন বা এলোমেলো
সমস্ত কৈশোর-কাল
মাঝখানে বিচ্ছেদের কপাল
যেন অবিরত অভিশাপময়
উদ্বেগ ও সংশয়ের প্রণয়
মর্মরিত অপেক্ষায়-
সবই মিশে যায়
সবকিছু উড়ে যায়
অজানা, অচেনা স্পর্শহীন হাওয়ায়…

রোমান জাহান। কবি। জন্ম বাংলাদেশে গারোপাহাড়ের পাদদেশে জেলা শেরপুর। পড়াশুনো করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। পেশা হিসেবে নিয়েছেন আইনকে। প্রকাশিত বই: ‘কেবল ক্ষয়ে যাওয়ার কাহিনি’ (কাব্যগ্রন্থ), ‘কষ্ট আছে ক্যাকটাস নেই’ (কাব্যগ্রন্থ, প্রকাশের অপেক্ষায়)

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

কবুতর

কবুতর

অগ্নিকাণ্ড আমার চৌহদ্দিতে ধ্বংসস্তুপের ভীড় পুনর্বার নুয়ে পড়া অতীতের তীর জীবনের মাঝপথে রেখে যায় সম্পর্কের…..