আনন্দ বলে ডাকি

কাকন রেজা
কবিতা
Bengali
আনন্দ বলে ডাকি

আনন্দ বলে ডাকি

আনন্দ বলে ডাকি, সেই ডাক কি কেউ শোনে
পাহাড়ে প্রতিধ্বনি ফিরে, সমুদ্র হারায় কুক্ষণে।

আনন্দ বলে ডাকি, মন্থনে বেদনারা উঠে আসে
সকল অর্জন বৃথা যায়, বিপ্লব কে আর ভালোবাসে।

বাসে না কেউ ভালো, তবু আনন্দ বলে ডাকি
যমুনার জল কালো, কৃষ্ণের না পাওয়া ধরে রাখি।

অভ্যাস

তোমাকে নিমন্ত্রণ জানাই, এসো দেখা হবে
ফিরে এসো, কিছুই নেই অসম্ভবে;
না, আমন্ত্রণ নয়, ওটা থাকার কথা বলে
জানি তো, যদি আসো, ফিরে যাবে বৃষ্টি আসার ছলে!

রাত্তিরে বৃষ্টিটা খুব আসে, বর্ষায় ফোটে হলুদ কদম
মেঘেদের চোখে অশ্রু, বিষাদের রঙে মনোরম;
ফিরে যাও, তবু তো একবার আসো
ফিরে যেতে যেতে হয়ে যাবে ফেরার অভ্যাসও।

নিনাদ

ফেলে রাখো গাঢ় রঙের দুঃখগুলো কিংবা যাপন করো
মনে রেখো প্রতিবাদের আঙিনা নয় খুব বড়সড়;
বেদনাগুলোকে জ্বালিয়ে দাও, হয় চিতা কিংবা মশাল
জেনে রেখো, বিক্ষোভের সময় নয় অনন্তকাল।

তোমাদের বলি, দুঃখবিলাস কোনো কাজের কথা নয়
বিলাস বিস্মরণের আরেক নাম হয়তো সংশয়;
বিষাদের রঙ ঢেকে দিলে ক্ষোভের ক্যানভাস, চিত্রকল্প
ভেবে দেখো, হাতে থাকা কড়ির মতন ক্ষণ খুব স্বল্প।

তারচেয়ে চলো কাচের ঘরটা ভাঙি যেন রাজার প্রাসাদ
ঘুড়ির মতন উড়াই ক্ষোভের নিশান এবং জয়ের নিনাদ।

বৈষ্ণব

ফানা হই তোমাতে, তোমাতেই বিলীন
তোমার কাছে আমার আজন্মের ঋণ

তুমি কি বোঝ তা, যেমন বুঝতেন রাধা
বৈষ্ণব জীবন জানি তোমার সাথেই বাঁধা

ভিক্ষা করি পথে পথে, মুঠো-ভিক্ষা চাল
গৃহস্থ জানে আমার কিসের আকাল

জানে না, জানো তুমি রাধা, মীরাও জানে
ইশকও বেপথু হয় কৃষ্ণের অভিমানে

কাকন রেজা। লেখক, প্রাবন্ধিক ও সাংবাদিক। জন্ম ১৯৬৮ খ্রিস্টাব্দের ৬ মার্চ, বাংলাদেশে, ঢাকার উত্তর শাহজাহানপুরে। তারুণ্যের দিনগুলো পাড়ি দিয়েছেন লেখকের নিজ জেলাশহর শেরপুরে। তাঁর বাবা মরহুম আব্দুর রেজ্জাক ছিলেন, একাধারে লেখক, সাংবাদিক ও রাজনীতিক। মা জাহানারা রেজ্জাক এক সময়ে ছিলেন...

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

ফেরা

ফেরা

ফেরা অনেক দিন আসিনি তোমার চোখের কোণে, বুকের পাশে, নিঃশ্বাসের চারপাশে। ভেবো না আমি পথ…..