একটা পাগল চাই

তীর্থপতি গুপ্ত
কবিতা
Bengali
একটা পাগল চাই

একটা পাগল চাই

একটা পাগল চাই
যার মুখে সব সময় গ্যাজ গ্যাজ করবে গরম থুতু।
ঠোঁটের ডগায় লকলক করবে শালা শুওরের বাচ্চা মতো সহজ বাংলা,
দরকারে চার ছয় অক্ষর।
চরম বুদ্ধি দরকার নেই, সত্য দরকার।
ওর কোনো পছন্দের রঙ নেই,
নেই কোনো পছন্দের অস্ত্র।
রাস্তা নেই চেনা, খিদে নেই পেটে।
তার কোনো দিদি নেই, দাদা নেই, মামা নেই কাকা নেই, তিনকুলে কেউ নেই।
তাহলে?
শুধু সে সত্য দেখবে,
মুখের উপর বলে দেবে,” শালা শুওরের বাচ্চা এই করতে তোকে কাজ দিলাম!!! ”
বলেই ছিটিয়ে দেবে গরম থুতু।
ব্যাস!!!
তারপর সিকিউরিটির গুলি করে ঝাঁঝরা করে দেবে বুক।
অথবা পোলে বেঁধে পিটিয়ে মারবে।
আর আমি?
দূর থেকে আইসক্রিম খেতে খেতে দেখবো ঘটনাটা, ডিটেলে।
তারপর রাতে ফিরে কিঞ্চিৎ গলা ভিজিয়ে লিখব অমর কাব্য, তাড়াতাড়ি।
ভোরে আবার ফ্লাইট ধরতে হবে যে।

তীর্থপতি গুপ্ত। কবি ও চিকিৎসক। পেশায় ফিজিওথেরাপিস্ট হলেও নেশায় কবিতা, ক্যামেরা, কালার। নিজেকে যখন দমবন্ধ লাগে তখন কবিতাই প্রাণ দেয়। মুর্শিদাবাদ জেলার সদর শহর বহরমপুরেই জন্ম কর্ম ও বেড়েওঠা। তাঁর মতে, একটু ভালো থাকা একটু ভালো রাখার জন্যই বেঁচে থাকা,...

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

কবুতর

কবুতর

অগ্নিকাণ্ড আমার চৌহদ্দিতে ধ্বংসস্তুপের ভীড় পুনর্বার নুয়ে পড়া অতীতের তীর জীবনের মাঝপথে রেখে যায় সম্পর্কের…..