চাঁদ কুড়াতে যাবো

সঞ্জয় কুমার মুখোপাধ্যায়
কবিতা
Bengali
চাঁদ কুড়াতে যাবো

চাঁদ কুড়াতে যাবো

একবার ভাবি কুড়াতে যাবো,
এক টুকরো চাঁদ পড়ে আছে পাশের জলায়!
তাকে কুড়াতে যাবো।

লোকে বলে কি হবে তুলে?
উজ্জ্বলতা কমে গেছে নোংরা জলে!

আমি বলি তবু কুড়াতে যাবো,
সে‌ তো ওর দোষ নয়।
ও যে জলে পড়ে আছে অভিমানে অছিলায়,
কিছুটা ভুলে ভরে আছে হৃদয়।

সে তো ছিল না আমার কাছে,
দোষ তারই না হয় হলো।
দেখি তবু যদি যেতে পারি,
কাল‌ই যাবো..
পড়ে থাকা চাঁদ তোমায় কুড়াবো।

মেঘবৃষ্টির রূপ

হারিয়ে যাওয়া মনের উপরে মেঘ আকস্মাৎ এসে দাঁড়ায়,
তখন তোমার প্রতিটা কথা হয়ে ওঠে বৃষ্টির ফোঁটা,
কথাগুলো মনে আনে বর্ষাকাল,
ঝির ঝিরে চোখের জলে লিখে চলি কবিতা।

মেঘ ভেসে বেড়ায় এক প্রান্ত হতে অপর প্রান্তে,
মনো তাঁর মেরু বদলায়।
অতীতের কত স্মৃতি পড়ে থাকে রাতের শয্যায়,
মন ভালোবাসার গন্ধ হাতড়ায়।

আমি হাত বাড়িয়ে সেই মেঘবৃষ্টির রূপ দেখি,
মন মূহুর্তে হয়ে ওঠে বিরহী মেঘদুত,
মনে পড়ে শ্রাবণের সন্ধ্যাটুকু।

মনকে চেনার আগে আমরা কেন লিখিনা প্রেমের কবিতা?
কিন্তু কেউ লিখে রেখেছে আকাশে,
সেই ভালোবাসার কবিতায় রচনা করেছে এই বৃষ্টি!
ডেকে এনেছে…
এই ভরা ভালবাসার মনের দুকূল ছাপানো বর্ষা।

সময় কম

গত বাইশটি ঋতুচক্রে গাছটির সবকিছু ছিলো,
কখনো বৃষ্টি বেশি পেয়েছে-
কখনো আগুনের তাপে পুড়েছে ওর মন,
বসন্তের আবেশ‌ কম বেশি ছিলো।

কিন্তু প্রকৃতির দেওয়া পোড়া দাগগুলো স্পষ্ট!
রোজ চেষ্টা করেও মুছে যায়নি,
আজ‌ও ওর চারিপাশে সুষ্পষ্ট।

কারণ একটাই..একটা

অবুঝ প্রকৃতির শুধু‌ই খামখেয়ালী পথে হাঁটা,
আর হোঁচট খাবার পথ প্রশস্ত করে বাঁচা
বোঝেনি কোনোদিন সংরক্ষণের জোয়ার-ভাটা।

গত বাইশটি ঋতুচক্রের সবকিছুই ছিলো,
তবু গাছটির অস্বীকার এখন বৃষ্টিতে ভেজা।
হারানো বসন্তের চাঁপা ফুলের গন্ধ পাওয়া
বুঝতে হবে অনেকগুলো ঋতুচক্র এখনো বাকি ছিলো।

ঝর্ণার কাছে যাবো

পাহাড় থেকে যেমন ঝর্ণার অস্থিরতা নামে,
সমতলে রোজ নামে কোলাহল!
মানুষ অক্লান্ত পরিশ্রমের পর পায় হলাহল।

তাই অনিচ্ছাকৃত হলেও
মানুষের সম্পর্ক ভুলে যায়।
মাথা নিচু হয়,
মনে হয় ঝর্ণার কাছে ফিরে যাই,
ভাবি কাছে গেলে শান্তি সুখ সব ফিরে পাব।

হয়তো আর কোনো ইচ্ছে নেই
তাই ভাবি এইসব ভেবে কেন যাবো?

সঞ্জয় কুমার মুখোপাধ্যায়। লেখক। জন্ম ভারতের পশ্চিমবঙ্গরাজ্যের কলকাতায়। পেশাগতভাবে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারি সংস্থা সি.এস.আই.আর এ কর্মরত। প্রকাশিত বই: 'ইচ্ছে পাখীর স্বপ্ন' (২০১৭), 'বিশল্যকরণী' (২০১৮), 'কবিতা পাড়ার ছলাৎছল' (২০১৭), 'ঈশ্বরের চোখ অথবা কাতিল' (২০১৭), 'কলম যখন কথা বলে' (২০১৭), 'পদ্মাক্ষর' (বাংলাদেশ,...

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

কবুতর

কবুতর

অগ্নিকাণ্ড আমার চৌহদ্দিতে ধ্বংসস্তুপের ভীড় পুনর্বার নুয়ে পড়া অতীতের তীর জীবনের মাঝপথে রেখে যায় সম্পর্কের…..