জীবনধারা

আশিস ভৌমিক
কবিতা
Bengali
জীবনধারা

জীবনধারা

জীবন তুমি বধির হতে শেখো
পায়ের বেড়ি দেখতে পায়না কেউ
শুনে ফেল কেবল না বলা সংলাপও
স্রোত হারালে তাতেই ওঠে ঢেউ ।

এই শহরে এখনও চাঁদ ওঠে
জোছনা না হয় ওদের গাঁয়েই থাক
কতজন আজও ঘুমায় ফুটপাথে
দিনের আলোয় নির্জনতা ভেঙে যাক ।

জীবন তুমি নদীর কাছে যেও
ছেড়ে আসা পথ সহজেই ভুলে যায়
স্রোত কুড়োতে নীচের দিকে নামো
থেমে গেলেই বুকে আগাছা জন্মায় ।

জীবন তুমি বধির হতে শেখো
গভীর রাতে নিজেকে কেন দেখো ।

 

অভিমুখ

তুমি দিলে এক-সমুদ্র ভালবাসা
আমি তার থেকে একমুঠো নুন তুলে নিয়ে এলাম
বানালাম সুস্বাদু ব্যঞ্জন ।
তুমি উদ্দাম হাওয়ায় ভেঙে দিতে চাইলে
আমার সাজানো প্রদীপ
আমি বাসর সাজালাম বনস্পতির নিবিড় ছায়ায় ।
তোমার প্রবাসী বাতাসে অতৃপ্ত বাসনার ভীড়
খালের দুপাশে বুনো ঝোপে কর্কশ আলোড়ন ঠেলে
আমি ফোটালাম সুগন্ধি ফুল ।
তুমি আমাকে ভাসিয়ে নিতে চাইলে তোমার আগ্রাসী বানে ,
আমি খুলে দিলাম নদীপথ
ভালবাসা-জলে বীজ বুনলাম ।

আসলে তোমার ভালবাসার এক কনা আমার সুদীর্ঘ পথ চলা ।
শুধু ধরিত্রীই জানে, কীভাবে ধারণ করতে হয়
ভালোবাসার সমুহ অত্যাচার ।

 

আশিস ভৌমিক। কবি ও শিক্ষক।  জন্ম ৫ এপ্রিল ১৯৭৪ খ্রিস্টাব্দ; ভারতবর্ষের পশ্চিমবঙ্গরাজ্যের পূর্ব মেদিনীপুর। সুরেন্দ্রনাথ কলেজ থেকে রসায়ন শাস্ত্রে স্নাতক। শিক্ষকতার ফাঁকে ফাঁকে সাহিত্য চর্চা। প্রকাশিত বই: 'কবিতা জন্ম' (কাব্যগ্রন্থ)।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ