দিনলিপি থেকে

শ্রাবণী সিংহ
কবিতা
Bengali
দিনলিপি থেকে

দিনলিপি থেকে
১)

মন
হাওয়ায় ভাসতে দিয়েছি তাকে
দূর্গা টুনটুনির মত..

প্রয়োজন একটি সম্বোধনের-
কাকে এসে বসাই শেষ পংক্তিতে

মৃত্যুবৎ সাপ পেঁচিয়ে আছে
প্রেমাঙ্গুরীয়’তে
খুলে ফেলি একটানে

সঁপে দিয়েছি নিজেকে

অনবধানতার হাতে দিনরাত সঁপে দিয়েছি তার মানে।

 

২)
অসুখে মানুষ কতটা একা,সেটা ভুলে যায় সেরে উঠার পর

অসুখ সেরে গেলে গভীর ঘুম পায়।
দেহাংশ জুড়ে নাম্বনেস্‌…
কবিতার মত

 

নিসর্গের বাইরে

নিসর্গের বাইরে যত সব হিংস্র ছবি
হৃৎপিণ্ডের জলে ভাসে
অসুখের পিরান্‌হা, হাড়-মাংস খুঁটে খেতে তৎপর…

নিত্যসঙ্গী মুখোশে ভালোলাগা’ও ক্লান্তিকর হয়ে ওঠে
কখনও…
নৈমিত্তিক হ’লে সব নতুন করে গড়ি।আপাত সন্ধি।
স্বপ্নলিপি জমা রেখে দিলাম হিমঘরে।

প্রেম,কথা ও জীবন

প্রেম
যা নির্ঘুম, অস্থির
আজ শুধু যুগ্ম কৌতূহল
হু হু বুকে ভেসে চলা
দানিয়ুবের স্রোতের মতো

কথা
যা সৃষ্টি হয় একা একা
যা ছিল একদিন জন্মের ভাবানুবাদ
প্রাণ পায় অন্তহীন বাগ্মিতায়

জীবন
আছে আজও,প্রেম আছে,
বিরহ নারকেল বাতাস
শব্দনীরব উঠানে
স্থির হয়ে আছে কয়েক লক্ষ উচাটন
প্রেমিকের ফুল ও জোনাকি হয়ে

শ্রাবণী সিংহ। কবি। জন্ম ও নিবাস উত্তর-পূর্ব ভারতের অসম রাজ্যের গুয়াহাটি শহরে।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

তৃষ্ণা

প্রাচীন সভ্যতা নিমগাছের ডালে বসে থাকা কাকের কন্ঠস্বর চিরে বেরিয়ে আসছে বুভুক্ষু পৃথিবীর আর্তনাদ মহেঞ্জোদাড়ো…..