দুধভাই

মোকসেদুল ইসলাম
কবিতা
Bengali
দুধভাই

তিচিহ্ন

গভীর থেকে উঠে আসা সমূহ দরদ
নানাবিধ উপমায় সাজানো পাখি
এখন এইসব এক একটা বিপন্ন নশ্বরতা

প্রতিজন ফেরারি মানুষ আলোর প্রত্যাশী
বাঁধন খুলবো বলে আলগা হাতে বসে আছি

আশ্চর্য শব্দ আটকে আছে বিষাদের বেহালায়
অগ্নিদাহে পুড়ছে কারো সোনালি শৈশব

কথা- যেন এক একটা মাত্রাহীন ছন্দ
জীবনের নোট খাতায় মিশেছে সব যতিচিহ্ন ।

মা (৩৭)

বীজের মতো একটা মন। যতিচিহ্ন পাশে রেখে বড় হচ্ছে কালো রাত। এক আকাশ মাতৃত্ব নিয়ে মা ঘুমিয়ে গেলে আমি তার পেটের ভেতর লিখতে থাকি অ, আ, ক, খ। কলোনি জুড়ে বেশুমার মানুষের নিঃশব্দ শ্বাস। পুষ্পিত ভোরের চোখে আঁকা স্বপ্নগুলো নামছে বুকের ভেতর। মা প্রস্তুত হচ্ছেন – আগামী মাসে তার কাঙ্ক্ষিত মঙ্গলকাব্যের পাঠ।

আশ্চর্য এক অন্ধকার

বুকের ভেতর লিখে রাখা একটা মন খারাপের দিন
বুকপকেটে রাখা তার সুইসাইড নোট
গতদিনের মিষ্টি চুমু— আলতো করে ছুঁয়ে দেয়া
শীত সকালের ঘাসের ডগায় বিন্দু বিন্দু জল
ও মন তুই কাঁদিস কেন জীবন যদি হয় এমন

শেষ বিকেলের ছায়ার মতো না হয় অস্পৃশ্য থাক
এইযে লিখছি তোমায় অক্ষরের পর অক্ষর সেজে
পাপড়িগুলো উড়ছে না আর; ঘুমিয়ে গেছে লখিন্দর
আলোর তবে উৎসটা কি? অ্যালার্ম ও দেহঘড়ি।

অরণ্যের ছোট্ট চোখে মৃত্যুও আজ অশ্লীল লাগে
সভ্যতার লম্বা হাত— সতীচ্ছেদ হচ্ছে যে তার
শাদা চুলে বিরাজ করছে আশ্চর্য এক অন্ধকার।

দুধভাই

কিছু স্বপ্ন জেগে থাকে নির্ঘুম বীজের ভেতর
যেমন করে ঠোঁটে শুয়ে থাকে তপ্ত প্রেম
এ আমার প্রিয় হ্যাঙার যেখানে ঝুলিয়ে রেখেছি
ইচ্ছেবেলার আগুনমাখা কথামালা।

মোহগ্রস্ত মন নিয়ে তবুও ভালো থাকতে চাই
বনসাই পৃথিবীটাই আমার কাছে বড় বিস্ময়
ভুল করে গুহাচিত্রের সদর দরজা খুলে দেখি
আটকা পড়েছে বুনো মাকড়সা।

ঈগল চক্ষু মেলে কেউ একজন বসে আছে রাতের বীজতলায়
উন্মাদ পিয়ানোর সুর শুনে হয়েছে বড় শিকারি
পৃথিবীর মৃত্যুদণ্ডের ঘোষণা দিয়েছিল যে
সে আর কেউ নয় আমারই দুধভাই।

জলধর্ম

নিজস্ব ধারাপাত জুড়ে জলের খেলা
প্লাবনে ভেসে যাচ্ছে অক্ষর
চোখের কাজল
দহন— দূর্বাঘাস

কারা যেন বলেছিল
যে সাঁতার কাটতে জানে না
তার নেই চুমুর অধিকার

মাদুলি দুলছে— নাভি বরাবর
যেন সুযোগ সন্ধানী বৃষ্টি
রাষ্ট্রীয় শোক শেষে নেমে আসে দৃষ্টি

কে সইতে পারে— ছাতার তলার নিম্নচাপ
হঠাৎ মেঘ
মফস্বলের ধর্ম খুইয়ে হচ্ছে সব শহুরে।

মোকসেদুল ইসলাম। জন্ম ১৬ সেপ্টেম্বর ১৯৮৪ তারিখে, বাংলাদেশের কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার নটানপাড়া গ্রামে। পড়াশোনা করেছেন ঢাকা কলেজ থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে অনার্সসহ মাস্টার্স। ব্লগের মাধ্যমেই মূলত তাঁর কবিতার জগতে প্রবেশ। প্রকাশিত বই: 'জলছাপ মেঘ' (যৌথ কাব্যগ্রন্থ, ২০১৫)।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

শঙখচিল

শঙখচিল   অসীম নীলাভ শূন্যতায় নির্ভার মেঘপুঞ্জের মত উড়ছে শঙখচিল, শিল্পিত ছন্দে পাখায় গেঁথে শূন্যতার…..