নির্জন হয়ে উঠি

কাকন রেজা
কবিতা
Bengali
নির্জন হয়ে উঠি

নির্জন হয়ে উঠি

লিখে যাওয়া মানুষগুলো ক্রমশ পাথর হয়ে যায়
কিংবা তারচেয়ে বেশি কিছু নির্জন

নির্বাণ প্রার্থণায় থাকে, তুমি নির্বাণের অপর নাম
নির্জন হয়ে উঠি, তোমার সমার্থক হতে

অন্ধকার গাঢ় হলে চাঁদ কাঙ্খিত হয় নিশ্চিত
নির্জন হলো অন্ধকার, অন্ধের আকার সে

বেহিসেবী বলেই হিসেব রাখা হয়নি
কতটা গেছে সে পদব্রজে

পায়ের শব্দ শোনা হয় না, নির্জনতা বধির বলে
তোমার চলে যাওয়ার শব্দ শুনতে নেই

ভাঁজ

ভাঁজ বলতেই শাড়িটা ঠিক করে নিলে
অথচ কপালের ভাঁজ দৃষ্টি এড়ালো

রোদ চশমায় ঢেকেছিলো দু’চোখ
অন্ধরাও ঢাকে

চুলগুলো সরিয়ে দিলে
গালের লালিমা সরানো গেল কি

লিপিস্টিক মুছে গেলে
ঠোঁটটা ক্রমশ নিজের হয়ে ওঠে

শাড়িটা স্পর্শ পেলে সচল হয়
এবং শাড়িতে জড়ানো আঁধার

শাস্ত্রজ্ঞ

জিহ্বা বেয়ে ভালোবাসা নেমে আসে
নফসের দোষ নিশ্চিত বলতে পারো;
ক্রমশ নিচে নামে, নিষিদ্ধ যাত্রাপথ
পাপ দূরে থাক, দ্বিধাহীন বলে আরো।

শরাবান তহুরা, চিন্তায় জুড়ে থাকে
বয়স প্রাপ্ত হলে, নফস গিলেছে মন;
যোগ্য হোক কোনো টিকিধারী পণ্ডিত
ব্রত হই রমণী তোমায়, শাস্ত্রজ্ঞ রমণ।

কাকন রেজা। লেখক, প্রাবন্ধিক ও সাংবাদিক। জন্ম ১৯৬৮ খ্রিস্টাব্দের ৬ মার্চ, বাংলাদেশে, ঢাকার উত্তর শাহজাহানপুরে। তারুণ্যের দিনগুলো পাড়ি দিয়েছেন লেখকের নিজ জেলাশহর শেরপুরে। তাঁর বাবা মরহুম আব্দুর রেজ্জাক ছিলেন, একাধারে লেখক, সাংবাদিক ও রাজনীতিক। মা জাহানারা রেজ্জাক এক সময়ে ছিলেন...

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

ফেরা

ফেরা

ফেরা অনেক দিন আসিনি তোমার চোখের কোণে, বুকের পাশে, নিঃশ্বাসের চারপাশে। ভেবো না আমি পথ…..