নিশা জেমস

ওয়াহিদার হোসেন
কবিতা
Bengali
নিশা জেমস

নিশা জেমস

৯.

ভেসে আসছে আফটার লাইফের ছলাৎ। এসব বিশ্বাস করতে ভালো লাগে।কয়েকশো কিলোমিটার দূরে ঘুম ভাঙলে হাতড়াই।আরতো দেখা হবেনা।এ নরম বাগিচায় হাতমোজা ফেলে আসার ভুল।

নিশা ম্যাডাম।এ বায়বীয় জগতে বড্ড আল্ট্রাভায়োলেট রে।ডুবুরির মতো এ চোখে ডুবে যাওয়ার বিলাসিতা কাম্য নয়।ফেরাউনের লাশ আমাকে আবার বিশ্বাসঘাতক হতে শেখায়।এ বার ক্ষমা করে দাও।ভালোবাসার বন্দুকে টোটা ভর্তি। বাতাসে বারুদের গন্ধ ভেসে আসছে।

মরে যাওয়া ভালো। আরো ভালো এভাবে পথের মোড়ে পাগল হয়ে যাওয়া।তোমার বাঁকা চাহনিতে আমার জ্বর পায়।স্যালাইনের ব্যাথা খুলে নিরাময় খুঁজি।

চতুর্দশপদী আলো জ্বেলে তামিল উষ্ণতার গা।গতরে বিষ ঢেলে দেওয়া।চোখের মণিতে প্রতিশোধ পরায়ণতা রেখে ফিরে আসতে হয় ঘোড়ার জিনে।কক খোলার শব্দ পেলে প্রেমিক নিরুদ্দেশ হয়।হাতে পায়ে লাল লাগে।
তোমার প্রেম আমাকে ছুঁয়ে যায়।ভিজিটিং আওয়ারে।

 

১০.

কুয়াশা উড়ছে।মেঘমলিন পার্বত্য আকাশে নেশা নেই।ঝুলে আছে বার্চ পাইনের অলৌকিক।

ক্রিসমাস শেষ।কেকের তাঁবুতে আমরা কজন নদী নেমেছি।সাঁকো জুড়ে দিয়েছে আমাদের রাত ও ভোর
আর সাঁকো পেরোলেই অমৃতলোক।

প্রাচীন বার্তালাপ এতদিনে গলে গলে ঝর্ণা হয়েছে
স্মৃতি নিয়ে শত মনখারাপ উড়ে যায়।
নিশা জেমসের দেশ।

গোপাল স্যারের হাসিতে লেগে থাকে তামিল ঢেউ।কৃতজ্ঞতার আলো ওড়ে।
চার হাজার ফুট উচ্চতায় পদ্যের মন্দাক্রান্তা মেঘ।

ওয়াহিদার হোসেন। কবি। জন্ম ১৯৮৬, ভারতের পশ্চিমবঙ্গরাজ্যের আলিপুরদুয়ার জেলার দক্ষিণ খয়েরবাড়ি রাঙ্গালিবাজনায়। লেখাপড়া করেছেন ইংরেজি সাহিত্যে। পেশাগত জীবনে তিনি একজন শিক্ষক। চাকরি করছেন ডুয়ার্সের এক প্রত্যন্ত চা বাগানের প্রাথমিক স্কুলে। প্রকাশিত বই: 'মধ্যরাতের দোজখ যাপন' (কাব্যগ্রন্থ, ২০১৩) এবং 'পরিন্দা' (কাব্যগ্রন্থ,...

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ