পল্লী কবি

আশিস ভৌমিক
কবিতা
Bengali
পল্লী কবি

কবিতা

কবিতা আমার মানসকন্য়া
স্বপ্নের সহচরী
কবিতা আমার রুপের হাটে
মানুষের ঘরবাড়ি ।
কবিতা হোক প্রতিবাদী ভাষা
বিপ্লবের ইন্ধন
কবিতা আনুক সাম্য়ের আশা
মানুষের বন্ধন ।
কবিতা আমার রূপকের মোড়ে
স্বপ্নের কোনও নারী
কবিতা যেন একমুখী প্রেম
হৃদয়ের কানাগলি ।
কবিতা আমার গর্জে ওঠা
লাঞ্ছিতা কোনও নারী
কবিতা কবির কলমের খোঁচা
শানিত তরবারি ।
কবিতা আমার ব্য়র্থ প্রেমের
গুমরানো ক্রন্দন
কবিতা আমার মিলন রাতের
সৃষ্টির স্পন্দন ।
কবিতা তুমি সাতনলি হার
শব্দের আভরণ
কখনও বা তুমি হয়ে ক্ষুরধার
সমাজের দর্পণ ।
কবিতা আমায় নিয়ে চল দুরে
নিভৃত কুঞ্জবনে
প্রকৃতি যেখানে আপন খেয়ালে
মন্দ্রিত কলতানে ।।

 

কবি ও কবিতা

এই যে এতো বর্ণমালা
সাজাই বসে মনের কোনে
সে কি কেবল ভুলিয়ে রাখা
দহন জ্বালা রৌদ্র দিনে !
এই যে এতো খুঁজে বেড়াই
শব্দ সকল পথের ধারে
সে কি কেবল লুকোন ক্ষিদে
মেটাই বসে অবসরে ?
এই যে এতো কাটাকুটি
ছন্দ লিপি খুঁজছি ভাষা
সে কি কেবল মায়া কাজল
সোনার হরিণ ধরার নেশা !
এই যে এতো রাগ অনুরাগ
মানব মনের গোপন কথা
আসলে তা পাথর চাপা
বুকের কোনে লুকোন ব্যথা !
এই যে এতো সম্মোহনী
কথার ছলে তোমায় ছোঁয়া
আসলে তা অভাবি মনে
ভার্চুয়াল প্রেম ইউটোপীয়া ।

 

পল্লী কবি

আমি চাষা কবি
মেঠো মোর ভাষা
কেউ কি আছ বসে
কহিতে দু-দন্ড কথা।
রঙ মেখে সঙ সেজে নয়
এসো ঘামের গন্ধ নিয়ে গাছের ছায়ায় বসে
ক্লান্তি জুড়াই মনে ।

অভাবী ঘরের দাওয়ায়
কথা বলো প্রান খুলে
সেই কাব্য মোর
লেখা থাক পাতা জুড়ে।
ভাবের কথা নাই বা এল
তোমার সরল মুখে
চোখের ভাষায় বলো
নেব তা দু হাত ভরে ।

আমি ভাষা খুঁজে ফিরি
জসিমুদ্দিনের গাঁয়ে
যেথা কোয়েল দোয়েল শ্যামা
সুখদুঃখের কথা পাড়ে
তাই মাটির প্রতিমা গড়ি
সাবেকি মাটির ছাঁচে
আবহেতে যেন তার
মেঠো সুর বাজে।

কাব্যিক ব্যঞ্জনা
থাক বাঁধা নোট বইয়ে
পল্লীর কবিতা যেন
মুখে মুখে ফেরে ।।

 

কেন লিখি

জানি, আকাশে তারাদের নেই প্রয়োজন !
তবু কবিতা লিখি
প্রেমে-অপ্রেমে ;
চারিদিকে শুধু যন্ত্রের ঘর্ঘর ।
আকাশে চাঁদ বাঁকা হাসি হাসে
নিশি কুটুম্বেরা তাকে ফেরি করে।
তবু লিখি আমি ,
হয়তো’বা কোনও নিশিথীনী চেয়ে অমারাতে
ফেলবে দু-ফোঁটা জল
দুর নিহারিকায় ।
ঘাসের শিশিরে পড়বে সে ছায়া।
থাকবেনা কোনও চাঁদ
মুছে দিতে সে অশ্রুধারা !
আকাশ গঙ্গায় বয়ে যাবে জল ;
জোনাকিরা গাবে তার গান ।
হয়তো’বা নিশিঘোরে মেনে নেবে সে আলিঙ্গন –
স্বার্থক হবে আমার এই কবিতা যাপন।

আশিস ভৌমিক। কবি ও শিক্ষক।  জন্ম ৫ এপ্রিল ১৯৭৪ খ্রিস্টাব্দ; ভারতবর্ষের পশ্চিমবঙ্গরাজ্যের পূর্ব মেদিনীপুর। সুরেন্দ্রনাথ কলেজ থেকে রসায়ন শাস্ত্রে স্নাতক। শিক্ষকতার ফাঁকে ফাঁকে সাহিত্য চর্চা। প্রকাশিত বই: 'কবিতা জন্ম' (কাব্যগ্রন্থ)।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

কবুতর

কবুতর

অগ্নিকাণ্ড আমার চৌহদ্দিতে ধ্বংসস্তুপের ভীড় পুনর্বার নুয়ে পড়া অতীতের তীর জীবনের মাঝপথে রেখে যায় সম্পর্কের…..