বিরোধাভাস

শ্রাবণী সিংহ
কবিতা
Bengali
বিরোধাভাস

বিরোধাভাস

সবেতেই বিরোধ-
কোমলের সাথে কাঠিন্য মিলে গেলে,
প্রাপ্তি ও বিসর্জন নিয়ে চলে
ভাসানের ছেলেখেলা।

আখের খেত থেকে পালিয়ে বেড়ায় পাখি ও পিপাসা।
রক্ত ও রস চিনে নিতে সময় লাগছে, এতটাই স্লথজীবন!

অন্ধকারের প্রাণশক্তি এক ছটফটে জুনিপোকা,
বুঝতে বুঝতেই অনেকটা সময় লাগছে
শ্বাপদ ও সিংহের!

ফুঁপিয়ে কাঁদে অন্তরাত্মা-
স্পর্শের সংজ্ঞা ভুলতে নাছোড় অন্ধ
বদ্ধ কালা হতে রাজী নয় কোনোদিনও!

 

সমকালীন

যে জীবন আটকে আছে সমকালীন তরজায়…

যাযাবরী বৃষ্টিদানার সাথে কি যেন তুক্ আছে বিকেলের-
অতীতের ভালোথাকাগুলো
বর্তমানে এসে ফুল ফোটায়

একটি মিশ্র দিনের হিসাব, অনুভূতি-দ্বন্দ,পরিতাপ
সব মিলিয়ে
আর একটি সৌরকাল ঘোষণা
কালান্তরে
তবু একা বালিহাঁসের মত
বিচ্ছিন্ন দ্বীপ নিঝুমে…
কোনো মিলিত উৎসবে নয়।

 

তোমার চোখের ইশারায়

পালাতে চাই এই দৃশ্য থেকে, এই রসায়ন সবুজ সবকিছু থেকে।
পালাতে ইচ্ছে করলেই ডানা মেলি…এই পথভার অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায়।
অক্টোপাসের মত আটটি গলি।

সখ্যতা মেশানো ছাতিমগাছ আর ওই পর্যন্তই তার পরিধি।
নজরমিনার থেকে নিকট জঙ্গলে একটা পথছায়া
যতদূর চোখ যায়

পালানো হয় না আর
তোমার চোখের ইশারায়
আগামীর বিশ্রাম,দাঁড়িয়ে আছি বিবশ নারী।

 

সীমাবদ্ধতা

নদীর পলি যখন নামে প্রতিটি ঢেউ তখন তার অন্তরায়
দৃশ্যটি হয়তো পাললিক, মনছোঁয়া
তবে
কিছুটা ক্ষেত্রে জীবনের সীমাবদ্ধতাগুলোও …

অশৌচকালীন নিয়ম পালন চলছে নিয়নে
নশ্বর লোকালয়ে
খুলে খুলে দেখি যাবতীয় স্মৃতির পাতা,
স্বাদ-বিস্বাদ দুটোই হাতড়াই,নুনের নকশা গালে যেন
অভাগা চর পড়ে আছে চন্দ্রভাগার
সমুদ্রে যাওয়াও বারণ

পুরনো পৃথিবীটা আমার

বসে থাকি জানলা থেকে কিছুটা আড়ালে..
উইন্ডচাইমের শব্দটা জলতরঙ্গের মত ঢুকে
পড়ে অহেতুক আয়নায়

এই হ্যাং ওভারের মাঝেও
একটা বৃষ্টি-উন্মুখ জ্বরো রোগীর মত কল্পনা বারবার…

একটা বৃষ্টি এসে শান্ত ঘুম পাড়িয়ে দিক

ঘুম শেষে জেগে উঠলেই যেন পেয়ে যাই
সেই পুরনো পৃথিবীটা তোমার আমার

সমকালীন

যে জীবন আটকে আছে সমকালীন তরজায়…

যাযাবরী বৃষ্টিদানার সাথে কি যেন তুক্ আছে বিকেলের-
অতীতের ভালোথাকাগুলো
বর্তমানে এসে ফুল ফোটায়

একটি মিশ্র দিনের হিসাব, অনুভূতি-দ্বন্দ,পরিতাপ
সব মিলিয়ে
আর একটি সৌরকাল ঘোষণা
কালান্তরে
তবু একা বালিহাঁসের মত
বিচ্ছিন্ন দ্বীপ নিঝুমে…
কোনো মিলিত উৎসবে নয়।

শ্রাবণী সিংহ। কবি। জন্ম ও নিবাস উত্তর-পূর্ব ভারতের অসম রাজ্যের গুয়াহাটি শহরে।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

প্রতিভাস

প্রতিভাস

স্পষ্টতা অন্ধকারের মতো স্পষ্টতা আলোর মধ্যগগনে নেই। উত্তাপে ঝলসে যাওয়া চোখে শীতলপাটি বিছিয়ে দেয় রাত…..

চিঠি

ক্ষোভ রোদের দোকানি হয়ে, ছুঁয়ে গ্যাছি দূর পরবাস আলোর ক্রেতারা দেখে, শূন্য ঝুলি খালি সর্বনাশ।…..