মজনু শাহ’র কবিতা

মজনু শাহ
কবিতা
Bengali
মজনু শাহ’র কবিতা

একেকটি পরিণাম মুছে ফেলে
চলে যেতে হয় প্রস্থানের দিকে।
তীক্ষ্ণ পেন্সিলে আঁকা
রত্নকোষাগারে যাবার সাতটি পথ
অনন্ত রাবারে মুছে, পিছু ও টান ফেলে
আমিও মাঝে মাঝে যাই,
দেখি পুড়ছে পুণ্যনৌকাগুলি
আর একান্তে তিক্ত বীণা,
দেখি বলরামের মুখ থেকে নির্গত হয়ে
সহস্রফণা অজগর সমুদ্রে চলেছে।

দুই.

(Solitude is a true elixir)

এই রাইশর্ষের ক্ষেত গোধূমের উপেক্ষারেখা ধরে
চলে গেছে সরীসৃপের দেশে। তুমি সেখানেই রয়ে যাবে
বলে ভাবো, হালকা বেগুনি রঙের মেঘ যেখানে
এক অনন্ত-বাহু প্রেতের শরীর ঢেকে দিতে থাকে। ভালো থেকো,
বিদায়, এখন আমায় একা সামলাতে হবে বিষ পিঁপড়েদের।
তারপর আমিও ছেড়ে যাব এই পেখমের বিশ্বলোক।

তিন. 

আমরা হলাম সাইবার-ঘুঘু এক একজন। ইদানীং যখন বাঁশঝাড়ে মরতে চায় চাঁদ, আমরা দৌড়ে আসি। তর্ক ও করতালির মধ্যে একটি ময়ূর মেলে ধরে তার পেখম। আমি মুখ ফসকে আরও একবার বলে উঠি:
কিমিদম!

মজনু শাহ, জন্ম ২৬ মার্চ ১৯৭০, গাইবান্ধায়। এ পর্যন্ত প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ — আনকা মেঘের জীবনী (১৯৯৯), লীলাচূর্ণ (২০০৫), মধু ও মশলার বনে (২০০৬), জেব্রামাস্টার (২০১১), ব্রহ্মাণ্ডের গোপন আয়না (২০১৪), আমি এক ড্রপআউট ঘোড়া (২০১৬), বাল্মিকীর কুটির(২০১৮)।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

ফেরা

ফেরা

ফেরা অনেক দিন আসিনি তোমার চোখের কোণে, বুকের পাশে, নিঃশ্বাসের চারপাশে। ভেবো না আমি পথ…..