মানুষ 

রুদ্র অয়ন
কবিতা
Bengali
মানুষ 
ইচ্ছে অনিচ্ছের ছড়াছড়ি 
আজ আর কাউকে
করি না অনুভব
ইচ্ছে করেনা কারও জন্যে
জীবনের মুল্যবান সময়গুলো
অপেক্ষা নামের মিছে প্রহরে রাঙাতে।
ইচ্ছে করে না কারও
ভীষণ মিষ্টি করে বলা
অনর্গল মিথ্যে কথাগুলি
মন্ত্রমুগ্ধ বিহ্বল হয়ে শুনতে।
ইচ্ছে করে না
নিদ্রা হরণের কারণ
আর কাউকে বানাতে।
আজ শুধু ইচ্ছে করে
ইচ্ছেদের ডানা দিয়ে উড়িয়ে ঘাসফড়িঙের মতো ঘুরতে।
ইচ্ছে করে জীবনটা
ফুলের মতো সাজাতে।
কত ইচ্ছে অনিচ্ছার
ছড়াছড়ি আজ।
ইচ্ছেগুলো ডানা মেলতে চাই
বাস্তবতা চেপে ধরে
ইচ্ছের ডানা।
মানুষ 
ব্লাড ব্যাংকে রক্ত খুঁজে
কেউতো খুঁজেনা জাত,
ক্ষুধার্ত পেট ধর্ম বুঝেনা
চায় যে দু’মুঠো ভাত।
সাদা আর কালো লম্বা-বেঁটে
রক্ত সবারই লাল,
তবুও কেন বৈষম্যের খেলা
চলবে আর কত কাল!
জাত  আর ধর্মে বিভেদ কেন
খোঁজো ভাই হয়ে হন্যে,
মানবতা-ই  হোক  বড় ধর্ম
মানুষ মানুষের জন্যে।
অভিনয়
কখনো যদি মনে হয়,
শূন্যতা ঘিরে ধরেছে তোমায়
তবে আকাশ পানে চেয়ে
ভেবে নিও একই
আকাশের নিচেই সে আছে
যে তোমাকে ভালোবেসেছিলো
আজও ভালোবাসে তোমাকেই
তবে আজ আর কোনও আশা
কোনও চাওয়া পাওয়া নেই আমার।
জানি কখনও আর
আমার হবে না তুমি
শত সহস্র অপ্রস্তুত দীর্ঘশ্বাস
কত শত রজনীর নির্ঘুম চোখ
আজও কিসের অপেক্ষায়
থাকে বুঝি না!
কত-শত কথা
কত রঙিন বাসনা
আর কতগুলো স্বপ্নের হাতছানি,
আমি একাকী ভাবতে থাকি
এসবের সত্যতাই বা ছিলো কতখানি!
অভিনয়টা বেশ আবেগি-ই
ছিলো তোমার
তবে যন্ত্রণাটা বড় করুণ আমার।
তোমার আবেগি অভিনয়টা
বুঝে ওঠতে একটু দেরি হয়েছিলো।
তুমি খেলোয়াড় ছিলে বেশ!

রুদ্র অয়ন। কবি।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ