মাহমুদ নোমানের কবিতা

মাহমুদ নোমান
কবিতা
Bengali
মাহমুদ নোমানের কবিতা

প্রিয় দুঃখের দিনে

বিদ্যালয় বৃষ্টিতে ভিজে যাচ্ছে
দেয়াল চুপসে ফ্লোরে জলরেখা
ক্লাসে এখনো বন্দি,
বের হয়ে আসছে দলবলে
হলদে ড্রেসে আমপ্রিয় প্রজাপতি
টিপ-ছাতার নিচে,
ঘুম তাড়ানো চোখে নেমে আসছে প্লাবন
তরতরে পিঠের রেখায় –
ভেজা সাদা পাজামার দিকে
তাকাতে ডুবে যাচ্ছি,
সবুজে কচুরিপানার ডোবায়
সাঁতার জানা এই- আমি
নিজেরও চোখের জলে…

 

আত্মার মিলন

কী ভেবেছো আমায়
সাথী বিনে সুর নেই
নাচতে জানি না,গাইতে জানি না
দুপুর চুরি করেছো আততায়ীর ছলনায় !
বাউলা মেঘের পরবাসে,
ডুবে যাওয়া কালো চুলের অমানিশায়
ঘুম আর আসে না —
জিকিরে জিকিরে নিজেরে নাচাই
সকাল হলেই জন্ম নেয়
তোমার গর্ভে আমারো দক্ষিণা…

 

দাগ

আমাকে হারিয়ে ফেলেছি সেদিন
মায়ের আঁচল ছাড়িয়ে,
মাকে বিশ্বাস করাতে পারিনি সে কথা
সে থেকে উদ্ভ্রান্ত —
খিটখিটে মেজাজের,
নারীর গন্ধে এঁটো ভাত চোখে ভাসে
পুড়ে যাওয়া ভাতের বুকে
দীর্ঘশ্বাসের মাঠ…
দৌড়াতে দৌড়াতে
পিছু ফিরে দেখি —
মায়ের চোখ চিকচিক করে ওঠে
ঘুমের মধ্যে

 

সানজুর জন্যে

বিয়ান বেলায় ডিমের কুসুম ফেটে —
সূর্যটার একটু একটু
ব্রাশ করা দাঁতের হাসি,
তেলচুকচুকে বাসন কোসনে
আমার হৃদয় পিছলে,
আয়নায় রাতে নষ্ট করা ছবি
দেখে আর চুল আঁচড়ায় না
মন খারাপের মৃদঙ্গ দাপাদাপি করে
সিলিন্ডার গ্যাসের আগুনে

 

বর্ষার তথ্য ফাঁস

আক্রান্ত বৃষ্টির পেয়ালায়
চুমুকে সন্ন্যাসী-
প্রতি শ্রাবণে মাতলামি করে,
ভিজিয়ে দেয় বর্ষার পাজামা।
উতরানি সন্ধ্যায় এ ঘর
ঐ ঘর পায়চারি শেষে,
পুকুরে স্নান করে
দাঁড়কাক খুঁটির তারে বসে
উঁকি মারে ঝলির ভেতর!

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ