সারাজাত সৌম’র একগুচ্ছ কবিতা

সারাজাত সৌম
কবিতা
Bengali
সারাজাত সৌম’র একগুচ্ছ কবিতা

বসন্ত

গাছে—
লটকে আছে চাঁদ
.                       আমার মুণ্ডু—
আত্মহননের আগের রাত
আমি একটা দীর্ঘ পথ পেয়েছি

কালো পাখি—
এই কণ্ঠ তোমার
.                       বাড়ির উত্তরে দাঁড়িয়ে
বাতাস শুধু বলছিলো,
এসো—নাভিতে আমার
.                           বসন্তের বালি
এখানে শুষ্ক

শামুকের কানাকানি—
দক্ষিণে আকাশ তার আলো
.              কে জানি ঢেকে দিলো
দুষ্টু চড়ুইয়ের ভেতর
.                            ছোট্ট আমি
.               চোখ বন্ধ করে
চুমু খেয়ে
এইতো—
.                   মাটিতে পড়ে আছি

আর তোমার ঘোলা চোখের মণি—
আমি একটা পথ পেয়েছি
পাথরের মতো চোখ
.                           হীরার চেয়েও দামি

বসন্ত যাকে ঘষে ঘষে—
আর উজ্জ্বল করে তুলছে।

মিউট

আমরা মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত হই—
মৃত্যুর জন্য আরও সুন্দর
এবং শান্ত,

তারপর সমস্ত বাতাস একই
দুলতে দুলতে দূরত্বহীন আলাপ

একচুলও ফাঁকা নই—
তুমি আমি!

অথচ মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত হই—
হই আরও মসৃণ ও সুন্দর
শান্ত হাওয়া—

পাতার উপর পাতার কথা
সে ভাষা মরমী—
হাজার বর্ণের এক পাখি

তাকে রোজ দেখি
রোজ ছুঁই
পলকে, পালকের ঝাপটায়
কখনবা দম বন্ধ হয়ে আসে

ভাবি—

আমি কী তুমি!
তুমি কী আমি!

তুমিই কী আমি—
আমরা একেই গানে ভেতর

বাজতে বাজতে দূরে
মিউট, অথৈ…

বন্ধু

যে আমার মসৃণতার দিকে তাকিয়ে থাকতো
আর বলতো, ওটা আমার—
আমি তোমাকে দিয়েছি
কিছুদিনের জন্য—
আমার ভালোবাসা সরূপ।

যত্ন নিও—খেয়াল রেখো
যেন সময়ের আগে সে নষ্ট না হয়ে যায়।

এবং আমার চোখের উপর চোখ রাখো
দ্যাখো—
কিভাবে পরিবর্তন হচ্ছি—
তোমার ভেতর!

একটা আলো ছড়িয়ে পড়ার মতো—
এবং তা নিভে যাওয়ার জন্যই।

যদিও সে বিশাল অন্ধকার—
তুমি আমি একসাথে—
মাংস আর হৃদয়
গোর পর্যন্ত হেঁটে যাচ্ছি আমরা

কিন্তু কেউ কাউকেই ছেড়ে যাচ্ছি না কোথাও।

মনে রেখো

আমাকে—
মনে রাখতে রাখতে
ভুলে যেও না,

বরং
ভুলে যেতে যেতে
আমাকে মনে রেখো।

যে কোনো সামান্য ব্যথাও—
বড় ব্যথার চেয়ে কম না!

ছোট্ট কথা থেকেই তো শুরু
গুরু আমার মহাকাল

কে অণু?
রেণু, তোমার দিকে ছুটছে
যেন আমার পৃথিবী—
একটা জাল

হে মাকড়—
আমাকে জাগাও
এই শরীর শুধুই মাটি না

প্রেমের দিকে তাকাও
সমস্তটাই সোনার সুতোয় বুনা।

যেন এক রেশম পোকা—
মরে যাচ্ছে তার নিজের আলোয়

আমাকে ভুলে যেও না—
বরং ভুলে যেতে যেতে
আমাকে মনে রেখো।

ঘুম

পৃথিবীতে তোমাদের সাথে দেখা হলো—
পৃথিবীতে তোমার সাথেই দেখা হলো—

এইবার, বহুবার—বারবার
আমি ঘুম থেকে উঠিনি
এই পল—
বিহ্বল, একচোখা
যার সাথে যা যা হলো—
তার সাথে সব একাকার হলো!

পৃথিবীতে তোমার সাথেই দেখা হলো—
পৃথিবীতে তোমাদের সাথে দেখা হলো—

সারাজাত সৌম। কবি। জন্ম ২৫ এপ্রিল ১৯৮৪, আকুয়া মাদ্রাসা কোয়ার্টার, ময়মনসিংহ। পেশা, চাকরি। প্রকাশিত বই: 'একাই হাঁটছি পাগল' (কাব্যগ্রন্থ, জেব্রাক্রসিং; ২০১৮)

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ