সীমাহীন অদৃশ্য অনুভবের সুবিশাল পৃথিবী

শিপ্রা
কবিতা, প্রবন্ধ
Bengali
সীমাহীন অদৃশ্য অনুভবের সুবিশাল পৃথিবী

অসম্ভব যুক্তিসঙ্গত উচ্চারণ। কবিতা একটা সীমাহীন অদৃশ্য অনুভবের সুবিশাল পৃথিবী, অর্থাৎ আবেগ ও অনুভবের সংমিশ্রণে যথার্থ শৈল্পিক চিন্তার সত্তাই কবিতা। এই অর্থে মনে হতে পারে, এটি ব্যক্তিনিষ্ঠ কিন্তু প্রকৃত অর্থে কবিতা ব্যক্তি থেকে বিশ্বের দিকে এর যাত্রা ধাবিত — যা ব্যক্তিগত ভাবের প্রকাশ হয়ে ওঠে সার্বজনীন।

কবির কাছে একেকটি কবিতা তার দিগন্তহীন বৈচিত্র্যের আলপনা, যে চিত্রলেখা পাঠকের কাছে মনে হয় নিজের ভেতরের লুকানো শব্দরূপের ঝর্ণায় স্নাত হচ্ছে সে। তবে যে সবসময় আবেগময়তার প্রয়োজনে কবিতা তা নয়, কবিতা হয়ে ওঠার জন্যে সংযম আবেগ সঞ্চালনে উৎকৃষ্ট মননশীলতার সুষম প্রবাহ। যেমন ভালো কবিতা পাঠক মনে প্রভাব বিস্তার করে— তাকে ভাবিয়ে তোলে— তার মননে এবং জগতকে নিয়ে। কখনো হয়ে ওঠে অনুসন্ধিৎসুর দৃষ্টি থেকে রহস্যময়তার অবাধ বিচরণকারী সাম্রাজ্য, বলা যায় কবি কবিতা পাঠক এক বিশেষ অভিজ্ঞতালব্ধ ফসল। এক হিসেবে বলতে পারি, কবিতা আমাদের আশ্রয়। দৈনন্দিন যাপন অতীতের স্মৃতি কিংবা ভবিষ্যতের দুর্ভাবনা বা স্বপ্ন আমাদের বিচলিত করে, আমাদের ভাবিয়ে তোলে—  তখন এই শিল্প সাধনার সুক্ষ্ম উৎকৃষ্ট মাধ্যমটিতে ডুবে থাকতে পারি ভেসে থাকতে পারি। কবিতাকে আশ্রয় করে যেমন করুণ ভাবকে সাময়িক মুক্তি দেয় তেমনি নিজেকে আবিষ্কারের সুখও দেয়। এজন্যেই আমরা কবিতার কাছে বারংবার ফিরে যাই, খোঁজ করি মনন রুচিবাগীশ বিশ্বকে।

আসলে কবিতাকে ঘিরেই কবির সারাটি জীবন অতিবাহিত হয়ে যায়, আর কবি ও কবিতার দাম্পত্যে মায়াময় প্রেম ভালোবাসা বিরহ যন্ত্রণা বিচ্ছেদের পছন্দ-অপছন্দের ডালিতে সাজিয়ে চলে কথোপকথন। এ সাজ একান্ত নিজের ভাবনায় নিজের শব্দে নিজস্ব ঢঙে ও রঙে— তারপর সময়-অসময়ের সব ব্যবধান ঘুচিয়ে মুখোমুখি হয় কবি দৃষ্টিগোচরতায়, ঘনিষ্ঠতার আকাঙ্ক্ষী হৃদয়ে। একেকটি অক্ষরের বিন্যাসে গঠিত হতে থাকে শব্দ ও চয়নের খেলা, কখনো পঙক্তিগুলো সেজে ওঠে আলুথালু বেশে আবার কখনো পরিপাটি হয়ে রচিত হয় সৃষ্টির বাসনায় কবির না বলা কথার প্রতিধ্বনির অনুলিপি।

জীবনানন্দ বলেছিলেন, কবিতা ও জীবন একই জিনিসের দুই উৎসারণ। শব্দের কারখানায় কবিকে সবই সইতে হয়—  সেখানে সে ভাষা বড্ড একা বড় নিঃসঙ্গ, চারদিক থেকে অভিযোগ হট্টোগোল আবদার গণ্ডগোল কোলাহল সবই কবির আপনার!

শিপ্রা পাল (লাভলী)। কবি। জন্ম ও নিবাস ভারতের পশ্চিমবঙ্গরাজ্যে। শিপ্রা নামেই লেখালিখি করেন।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

তর্জমা

তর্জমা

তর্জমা স্নানে শুচি হবার পর বেকসুর সন্ধ্যাগুলো শুধুমাত্র নিজস্ব অন্ধকারের নিচে দোলনাচেয়ারে ছড়িয়ে বসা কিছুটা…..