সুনির্দিষ্ট তিন তরল

জাহান রীপা
কবিতা
সুনির্দিষ্ট তিন তরল

সুনির্দিষ্ট তিন তরল: বীর্য, রক্ত, বুকের দুধ
তিন তরলে যে আমাকে জন্ম দিলো তখন..

প্রথম তরল গ্রহন করে তুই, বললি সোনা আসবি?
পৃথিবীটা দেখবি ঘুরে, আমার কোলে বসবি।
তখন আমি শূন্য ছিলাম, এক্কেবারে ভ্রণ..
আসছি আমি জানান দিতে..ই কষ্ট বেড়ে দ্বিগুণ!

দ্বিতীয় তরল রোজ দিয়ে তুই ,করলি আমায় বড়
নয় মাস তোর রক্ত নিয়ে ভীষণ বড়সড়
ঠিক মত দিন তারিখ গুনে, বললি সোনা আসবি?
আমার না হয় কষ্ট হলো, তুই তো আলো দেখবি!

তৃতীয় তরল মুখে দিতে, আঁকড়ে নিলি বুকে
সব কষ্ট ভুলে গিয়ে আঁচল দিলি পেতে
শীত কিংবা চৈত্র মাসে ওতেই জড়সড়
ছোট্ট আমায় শূন্য থেকে করলি অনেক বড়!

আবার যেনো জন্ম নিয়ে তোর আঁচলে আসি
তুই ছাড়া আর কে বুঝবে,আমি কেমন আছি?
এক পৃথিবীর সব সুখ তুই, তোর আঁচলে পুষি
এই পৃথিবীর সব সুখ মা’গো তোর আঁচলে বাসি!

জাহান রীপা। কবি।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

কবুতর

কবুতর

অগ্নিকাণ্ড আমার চৌহদ্দিতে ধ্বংসস্তুপের ভীড় পুনর্বার নুয়ে পড়া অতীতের তীর জীবনের মাঝপথে রেখে যায় সম্পর্কের…..