দাগহীন কান্না

অন্তরা দাঁ
কবিতা
Bengali
দাগহীন কান্না

দাগহীন কান্না

একদিন ডেকে নেবে দেখো
চিতাকাঠ, সেও পুড়ে যায়
মনে’র দোষ কি থাকে বলো
যদি উজানে’ই ফিরে যেতে চায়
দু’হাত বাড়িয়ে ডাকে যদি
নদীকে’ও ভুলে থাকা যায়
সব প্রেম একদিন জেনো
দাঁড়াবে খাদে’র কিনারায়
সিলেবাস বদলাবে একদিন
আব্দার-অনুযোগ আর না
বেনামী চিঠি’র সাথে প্রেম
ছিল যত দাগহীন কান্না।
একাকীত্ব
একাকীত্ব অসুখে’র নাম নয় কোনো
একা একা ভরে ওঠে প্রাপ্তি’র ঘর
দলে থাকা কাটানো সময় শুধু
একা চাঁদ বিরহ-সুন্দর চিরকাল
পরীক্ষায় প্রথম যে হয়
সে চিরদিন একাই থেকেছে
অন্যদের পিছনে ফেলে দৌড়
সফলতা হাতে’র তালু’তে উঠে আসে
তবু, একাকীত্বের গায়ে কলঙ্ক ছিটিয়ে
লোকে বলে —একা না বোকা!
এ কেমন উল্টোপূরান বলো দেখি!?
আমি একফর্মা’র কবিতা’র বই 
আয়না’য় তাকালে আজকাল
মাঝবয়েসী বদরাগী এক ভারী মহিলা
আমার তাবৎ ইচ্ছে-অনিচ্ছে’র দিকে
ক্ষমাহীন চোখে তাকায়
থুতু ছিটিয়ে নষ্ট করে
এ যাবৎ সব অক্ষর-সাধনা
অসহায় আমি ভয়ানক আক্রোশে
বেড়ালের মত বেঁকে উঠি
বোয়াল মাছের মতো হাঁ করে
আমায় গিলে নেয় সে
নড়াচড়া করতে গিয়ে বেসামাল
ছিটকে পড়ি মাঝরাতে
উদগার বিবমিষা’র পেছল লালারসে
হজম হবার আগেই
অন্ধকার ছাপাখানা’র প্রিন্টারে চ্যাপ্টা হই
আমি একফর্মার কবিতা’র বই।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

কবুতর

কবুতর

অগ্নিকাণ্ড আমার চৌহদ্দিতে ধ্বংসস্তুপের ভীড় পুনর্বার নুয়ে পড়া অতীতের তীর জীবনের মাঝপথে রেখে যায় সম্পর্কের…..