অপরাহ্নের ছোঁয়ায়

শ্রাবণী সিংহ
কবিতা
Bengali
অপরাহ্নের ছোঁয়ায়
অপরাহ্নের ছোঁয়ায়

অপরাহ্নের ছোঁয়া দিতেই যেন কৃষ্ণচুড়ার আন্তর্জাতিকতা...

কিছুটা ঢেউ দিলেই ঘুম পায় নিমের হাওয়ায়

এলোমেলো চুল

হয়ে পড়ে

ঝড়ের পরবর্তী গাছগুলো …


একটি দুটি পরিযায়ী
হঠাৎ উড়ে গেলে
মন উদাস হয় বৈকি
ঘ্রাণ খুঁজে ফিরি
প্রিয় মানুষের
কত প্রেম কত অনুরাগ
বাসি হলেও উৎসব অনন্ত

কথা

ভালোবাসা মাখা শব্দগুলি
পাখি কেমন অবশ হয়ে আসে বারান্দায়...

গোসাঘরে বন্দি কোহিনূর কত কথা,
তুমি জানলে না তো!


আর সময়কে সারাংশ করতে রুদ্রাক্ষের স্তুতি
যত ছুটছি, দশাশ্বমেধের ঘোড়া

পা দুটো অবশ হয়ে আসে,ফুলে আসা নখের কোণ
শব্দ না করে বসে থাকি
কত আর অন্ধকার মেখে শুয়ে থাকি
ঠোঁটে কথাবলা ফাল্গুন

মোহময় চাঁদের আলো থেকে

চন্দ্রবিন্দু’তেই থেমে থাকে চাঁদের কলঙ্ক
কখনও মাথায় ওঠে না
কপালেও না

যে সব কুটিরশিল্প গড়ে সেসব মোহময় চাঁদের আলো থেকেই…

যতটুকু ক্ষুদ্র আলো আসে কড়ি বর্গা ছুঁয়ে
এখনও তাই-ই যথেষ্ট
তাই দিয়েই সাজাতে থাকি
নির্বাণের সমস্ত উপকরণ

শ্রাবণী সিংহ। কবি। জন্ম ও নিবাস উত্তর-পূর্ব ভারতের অসম রাজ্যের গুয়াহাটি শহরে।

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ

প্রতিভাস

প্রতিভাস

স্পষ্টতা অন্ধকারের মতো স্পষ্টতা আলোর মধ্যগগনে নেই। উত্তাপে ঝলসে যাওয়া চোখে শীতলপাটি বিছিয়ে দেয় রাত…..

চিঠি

ক্ষোভ রোদের দোকানি হয়ে, ছুঁয়ে গ্যাছি দূর পরবাস আলোর ক্রেতারা দেখে, শূন্য ঝুলি খালি সর্বনাশ।…..