হিমঝরা সকালের কথা

মৌসুমী ভৌমিক 
কবিতা
Bengali
হিমঝরা সকালের কথা

চিল সময়

চলার পথে অলিগলি ঘুরে ঘুরে
ক্লান্ত শরীরে বিষাদ মনে
এগিয়ে চলা নিজের সাথে।

এভাবে অসংখ্য বছর কাটবে আরো,
তারই মাঝে এর খোলা বিস্তীর্ণ আকাশে
ডানা স্থির রেখে ওরাও দিনের পর দিন
অলস ভঙ্গিমায় চক্কর কেটে বেড়াবে
আর একবার করে খাবারের খোঁজে
নিচের দিকে নজর রাখবে।

দিনশেষে কোথাও নেই দ্যুতি,
ম্লান চোখে ক্লান্ত প্রাণ
পৃথিবীর বুকে ফিরবে।

আঁধার আসবে জানি,
নিঃশব্দে,
আদিগন্ত জুড়ে মাঝে মাঝে বাতাস বইবে।

বাতাস কি আনবে রাতের ফুলের সুবাস
আমার ঘরে?
নাকি তাকে ঢেকে দেবে মাঘী কুয়াশা?
কাল ঊষার ক্রীড়াচক্র দেখতে
আবারো দ্বার উন্মুক্ত হবে,
এভাবেই চলতে থাকবে।

 

হিমঝরা সকালের কথা

এইতো আমি দাঁড়িয়ে দেখছি
এই মাথার ওপরে
দোয়াত উল্টানো নীল নীলিমায়
তুলো মেঘের সমন্বয়
যেন জীবনকে খুঁজে খুঁজে বেড়ায়
অসীমে…

গগনতলে
বর্ষার ধারাস্নান শেষে
সবুজে সবুজে প্রতিযোগিতা চলেছে বেশ,
ঋতু পরিক্রমায় এখন শীতের রেশ।

তাই বুঝি উদীয়মান সূর্যের আলোতে
শরীর ছোঁয়া ধানের শীষও
ঝিলমিল করে
এক বুক জলীয় স্ফটিক ধরে রেখে
যে স্ফটিককণায় গাছ ফড়িং গা ভিজিয়ে
হঠাৎই ফিরে যায় পাতায়।

এবার গাছের পাতার
নুইয়ে পড়ার ফাঁকে ফাঁকে
সোনা রোদ যেন হাতছানি দিয়ে ডাকে,
পরপরই পাতাঝরার শব্দ আসে।

জন্ম ভারতের পশ্চিমবঙ্গের শিলিগুড়িতে। বেড়ে ওঠা, শিক্ষা সবই শহর শিলিগুড়িতে। উচ্চ মাধ‍্যমিক সরকারি স্কুলে ভূগোলের শিক্ষকরূপে কর্মরত। লেখালেখি কিশোর বয়স থেকেই। মূলত কবিতাই প্রথম পছন্দের। 'দ্রোহকাল অক্ষরে' সাহিত‍্য পত্রিকা এবং ' ড্যাস ' আন্তর্জাতিক ওয়েব ম্যাগাজিন সহ বিভিন্ন জায়গায় নিয়মিত...

এই বিভাগের অন্যান্য লেখাসমূহ